বন্ধ করুন

জেলা শাসক-এর দপ্তর

শ্রী স. অরুন প্রাসাদ
শ্রী এস অরুণ প্রসাদ

ভারতের পশ্চিমবঙ্গ জেলার বর্ধমান বিভাগের সাতটি জেলার মধ্যে একটি অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ জেলা হল বাঁকুড়া জেলা।এই জেলাটিকে পূর্বে সমভূমি এবং পশ্চিমে ছোটনাগপুর মালভুমি সংযোজক হিসাবে বর্ণনা করা হয়। পূর্ব এবং উত্তরপূর্বের অঞ্চলগুলি অপেক্ষাকৃত নিচু সমভূমিতে অবস্থিত।পশ্চিমের পাথুরে অংশ ক্রমশ উত্থিত হয়ে সংলগ্ন প্রদেশগুলিকে অবরুদ্ধ করেছে।

১৮৭৯ সালে জেলাটি খাতড়া,রায়পুর থানা ও সিমলাপালের কিছু অংশ মানভূম থেকে এবং সোনামুখী ,কোতুলপুর ও ইন্দাসের থানাগুলি বর্ধমান থেকে স্থানান্তরিত করে এর বর্তমান রূপ দেওয়া হয়। তবে কিছু সময়ের জন্য এটি পশ্চিম বর্ধমান নামে পরিচিত ছিল এবং ১৮৮১ সালে এটি বাঁকুড়া জেলা হিসাবে পরিচিতি লাভ করে। আধুনিক বাঁকুড়া জেলা সদরদপ্তর রূপে গঠিত হয় ১৮৮১ সালে।

প্রাচীনতম জেলা ,ঐতিহাসিক ও ভৌগোলিক প্রেক্ষাপটে বাঁকুড়া জেলা পশ্চিমবঙ্গের মধ্যে বিশেষস্থান লাভ করে। প্রসাশনের সুবিধার্থে দায়বদ্ধ জেলাশাসক এবং জেলা কালেক্টরেট হিসাবে আমি বিশ্বাস করি একটি অন্যতম জেলা হিসাবে এই জেলার তথ্যের উপস্থাপন খুবই গুরুত্বপূর্ণ।এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আমরা আশা করি নাগরিকদের দোরগোড়ায় পৌঁছাতে পারব।একবিংশ শতাব্দীর তথ্য সরবরাহের গতিশীলতা এবং সরকারের উদ্দেশ্য পূরণে তথ্য প্রচার ও প্রাশাসনিক প্রক্রিয়া সহজ করার পক্ষে এটি একটি সামান্য প্রচেষ্টা মাত্র। এই ওয়েবসাইটটিতে “সিটিজেন কর্নার” নামক একটি ব্যাবহারকারী অংশ রাখা হয়েছে। নাগরিকদের জ্ঞান বৃদ্ধি এবং প্রশাসনিক প্রধানের প্রকল্পগুলির সর্বশেষ আপডেট বিবরণ সরবরাহ করার জন্য।

আমাদের জেলার এই ওয়েবসাইটটির পুনঃনির্মাণ সংস্করণ আপনাদের কাছে উপস্থাপন করতে পেরে আমি খুব খুশি।আমি জাতীয় তথ্যবিষয়ক কেন্দ্রের দলকে অভিনন্দন জানাই যারা এই ওয়েবসাইটটিকে আবেদনময়ী ও তত্থবহুল হিসেবে উপস্হাপন করেছে এবং আমি এই ওয়েবসাইটটি গঠনে এ.ডি.এম ,এস.ডি.ও ,ডি.এম.ডি.সি তথ্য সংগ্রহকারী প্রমুখের অবদান,কঠোর পরিশ্রমকে স্বীকার করি।

আমি আপনাদের সকলকে এই ওয়েবসাইটটি ব্যবহার করার জন্য আমন্ত্রণ জানাচ্ছি এবং এই ওয়েবসাইটটির কার্যকারিতা উন্নত করতে এবং আমাদের জেলায় ই-গভর্নেন্স বাড়িয়ে তুলতে আমার ইমেল আইডি: dm-bank@nic.in তে সৎ প্রতিক্রিয়া ও পরামর্শ দেওয়ার জন্য আপনাদেরকে অনুরোধ করছি।

 

– এস অরুণ প্রসাদ, আইএএস

জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও কালেক্টরেট,

বাঁকুড়া জেলা